মণিরামপুরে সন্ত্রাসী, মামলাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ী নজরুল ও রুবেল নামে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের

0
419

স্টাফ রিপোর্টার : সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী, মাদক ব্যবসায়ী,মামলাবাজ, বহু বিয়ের নায়ক নজরুল ও রুবেল নামের দুই ব্যক্তির অত্যাচারে অতিষ্ঠ যশোরের মণিরামপুর ও কেশবপুর উপজেলার সীমান্তে বসবাসরত নিরীহ জনগন। এদের অত্যাচার থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য গনস্বাক্ষর সম্বলিত সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে জানা গেছে, মণিরামপুর উপজেলার সীমান্ত হাজরাকাটি গ্রাম ও কেশবপুর উপজেলার সীমান্ত চাঁদড়া গ্রাম। এই সীমান্তের চাঁদড়া গ্রামে বসবাসরত মৃত কিনু মোড়লের ছেলে নজরুল ও তোফাজ্জেল মোড়লের ছেলে রুবেল। বহুল আলোচিত নজরুল ও রুবেলের অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসী। এরা নিরীহ লোকজনকে বিভিন্ন কৌশলে ফাঁদে ফেলে হয়রানী মূলক মামলা দিয়ে চাঁদা আদায় করে আসছে। তারা ইয়াবা ও গাজা সেবন করে স্কুলগামী মেয়েদের উত্তক্তা করা ও রাতে এলাকার নারীদের উত্তক্তা করে আসছে। সম্প্রতি সৌদি থেকে বাড়ি আশা মহির উদ্দীন কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তারা তার সাথে সক্ষতা গড়ে তোলে। কিছু দিন যেতেই মহির তাদের কৌশলের কথা জানতে পেরে পিছু হটে। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ১৫ মার্চ বিকেলে মহিরের বাড়ির সামনে এসে ৫০ হাজার টাকা চাদা দাবী করে। ৭দিনের মধ্যে টাকা না দিলে গ্রাম ছাড়া করার ও মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়। এমনকি মহির উদ্দীনের নামে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মামলা দিয়েছে। শুধু এই নয় নজরুল ২৩টি বিয়ে করেছে। সে এ সকল স্ত্রীদের দিয়ে সকল কাজ হাচিল করে। তার ২৩ নং স্ত্রী ২ হাজার পিচ ইয়াবাসহ চট্রগ্রামে আটক হয়। জামিনের জন্য হাজরাকাটী গ্রামের জহিরের কাছ থেকে ৯০ হাজার টাকা হাওলাত নেয়। টাকা চাইতে গেলে ঘরে আটকিয়ে ধর্ষনের অভিযোগে ফাসিয়ে টাকা মেরে দেয়। একই ভাবে পরিবারের লোকদের ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রকারের মামলায় ফাঁসিয়ে চাঁদড়ার আবু গাজ্জালীর কাছ থেকে ১ লাখ ৬০ হাজার, গফুরের কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা, হাজরাকাটী নজরুলের কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকাসহ আরো অনেক গ্রামের অনেকেরই কাছ থেকে তারা বহু টাকা চাঁদা নিয়েছে। প্রতারক রুবেলের নামে একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে। কেশবপুর থানায় মামলা নম্বর ২ তাং ৩-৫-২০১৭, মামলা নং ১২ তাং ১৩-২-২০১৯, মণিরামপুর থানায় মামলা নং ২০ তাং ১৮-১১-২০১৬। এ ছাড়া কলারোয়া, ডুমুরিয়া থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। ফলে প্রতারক নজরুল ও রুবেলের হাত থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ডি আই জি, এস পি, এ এস পি (সার্কেল) এর নিকট স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ এলাকাবাসী গনস্বাক্ষর সম্বলিত লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন,

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here