নড়াইলে কলেজ ছাত্রীকে উত্যক্ত করার বখাটেকে গণ ধোলাই!

0
418

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়ায় কলেজ ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করার অভিযোগে স্বরজিৎ কুমার ঘোষ (৩৫) নামে এক বখাটেকে গণ ধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসি। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার লুটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়নের লুটিয়া গ্রামের মৃত ফটিক ঘোষের মাদকাসক্ত বখাটে ছেলে স্বরজিৎ ঘোষ দীর্ঘদিন ধরে এলাকার উঠতি বয়সী মেয়েদের স্কুল-কলেজে যাওয়া আসার পথে উত্যক্ত করে আসছিলো। সম্প্রতি সে ওই গ্রামের চিন্তা হরণ ঘোষের খুলনা সিটি ল’কলেজে আইন বিষয়ের শিক্ষার্থী নিপা ঘোষকে বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিলো। বিষয়টি নিপার পরিবার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও তার পরিবারকে জানায়। এতেও কোন পরিবর্তন না হয়ে স্বরজিৎ গত শুক্রবার বিকালে নিপাদের বাড়িতে গিয়ে তাকে মারধোর করে এবং বিয়ের প্রস্তাব দেয়। এমনকি বিয়েতে রাজি না হলে নিপার ছোট ভাই দুর্জয়কে হত্যার হুমকিও দেয়। এতে এলাকাবাসি ক্ষুব্ধ হয়ে স্বরজিৎকে গণধোলাই দিয়ে গুরুতর আহত করে। নিপার পরিবার ও এলাকাবাসি তাকে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। এলাকাবাসি আরও জানায়, মাদকাসক্ত স্বরজিৎ বিগত ২০১৬ সালে আপন ছোট ভাই অভিজিৎ ঘোষকে কুপিয়ে হত্যা করে এবং তার পিতা ফটিক ঘোষকে মারপিট করে একটি চোখ নষ্ট করে দেয়। এ ঘটনায় সে দীর্ঘদিন ধরে জেল-হাজতে ছিল।
নিপার পিতা চিন্তা হরণ ঘোষ জানান, মাদকাসক্ত স্বরজিৎ ঘোষ তার মেয়েকে বিয়েসহ প্রায়ই কু-প্রস্তাব দিত এবং উত্যক্ত করত। সে বখাটে প্রকৃতির লোক হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রামের কোন লোক মুখ খুলতে সাহস পায় না। আমি বিষয়টি প্রশাসনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের একাধিকবার মৌখিকভাবে আবহিত করেও প্রতিকার পায়নি। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here