কালিয়ায় শ্বশুরবাড়ি থেকে ভ্যান চালকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা, স্ত্রী গ্রেফতার

0
382

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের কালিয়ায় শ্বশুরবাড়ি থেকে ইবাদ শেখ (৩৫) নামে এক ভ্যান চালক জামাইয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারে ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। সোমবার (০৮ জুন) রাতে নিহতের বাবা ছবুর শেখ বাদি হয়ে কালিয়া থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আমেনা বেগমকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পিবিআই যশোর পুলিশ। আমেনা তার স্বামীকে পারিবারিক কারণে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে বলে পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সুত্র জানিয়েছে। মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলা আমতলা গ্রামে ছিদ্দিক শরীফের মেয়ে আমেনা বেগমের সঙ্গে পাশ্ববর্তী ফুলদাহ গ্রামের ছবুর শেখের ছেলে ইবাদ শেখের ৮-১০ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। ১০মে সকালে শ্বশুর ছিদ্দিক শরীফের বাড়ির সামনের বেড়া থেকে তার জামাই ইবাদ শেখের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। তখন পুলিশ লাশটিকে ময়না তদন্তের জন্য নড়াইল মর্গে প্রেরণ করে। এরপর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়। ময়না তদন্তের ফলাফলে ইবাদ শেখকে শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনা ধরা পড়ে। সোমবার (৮ জুন) রাতে নিহতের বাবা বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামী করে কালিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। অপরদিকে, মামলাটি দায়েরের পর ইতিপূর্বে দায়েরকৃত অপমৃত্যু মামলার তদন্ত কাজে নিয়োজিত থাকা যশোর পিবিআইয়ের একটি দল সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে নিহতের স্ত্রী আমেনা বেগমকে তার বাবার বাড়ি উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়নের আমতলা গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে। এ প্রসঙ্গে পিবিআই যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমকে এইচ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আমেনাকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে তার স্বামীকে পারিবারিক কারণে শ্বাসরোধে হত্যা করার পর বেড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখেছিল বলে স্বীকার করেছে। তার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য মঙ্গলবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here