খাজুরায় জমির বিরোধে লক্ষাধিক টাকার ধানের চারা নষ্ট

0
216

খাজুরা (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের খাজুরায় জমিজমা বিরোধের জেরে লক্ষাধিক টাকার ধানের চারা (পাতো) নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বাঘারপাড়া থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১ মাস আগে উপজেলার খাজুরার সাদীপুর দক্ষিণ মাঠে ওই গ্রামের ক্ষিতিশ চন্দ্র দাস ৩৩ শতক জমিতে ধানের চারা (পাতো) বপণ করেন। গত সোমবার ১৩ জুলাই ভোরে একই গ্রামের কাত্তিক চন্দ্রের ছেলে সাধন দাস, গণেশ দাসের ছেলে বিশ^জিৎ ও রতন দাসসহ ওই গ্রামের আরো ১০ জন তার বপণকৃত জমিতে পাওয়ার ট্রিলার দিয়ে চাষ দেয়। এ সময় ক্ষিতিশ চন্দ্র দাস ও তার বর্গা চাষীরা বাধা দিতে গেলে সাধনের লোকেরা তাদেরকে গালিগালাজ করে এবং হত্যার হুমকি দেয়। এ ব্যাপারে ক্ষিতিশ দাস বাদী হয়ে ঘটনার দিন বাঘারপাড়া থানায় অভিযোগ করেছেন। ক্ষিতিশ চন্দ্র দাস জানান, আমার শরিকদের সাথে দীর্ঘদিন ওই জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। জমি আমার নামে রেকর্ড এবং বৈধ কাগজপত্রও রয়েছে। আমি জমির দখলে আছি। আদালতে জমিটি নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে। কিন্ত হঠাৎ করে তারা আক্রমণাত্বকভাবে জমি দখল করার চেষ্টা করছে। তিনি আরো জানান, আমার ৪ মণ ধানের পাতো একেবারেই নষ্ট হয়ে গেছে। এই পাতো বিক্রি করা ও আমন ধান লাগানোর পরিকল্পনা ছিল। তা আর হলো না। এবার না খেয়েই মরতে হবে। এদিকে, সাধন দাস পাতো নষ্ট করার কথা স্বীকার করে জানান, দীর্ঘদিন ওই জমির দখলে আমরাও ছিলাম। যে কোন কারণে ক্ষিতিশ দাসের নামে জমিটি এসএ রেকর্ড হয়েছে। তাই সে জমির দাবী করে আসছিল। বর্তমানে জমির মামলার রায় আমাদের পক্ষে। জমিতে পাতো দেওয়ার আগে তাকে নিষেধ করেছিলাম। তারপরও সে পাতো দিয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা বাঘারপাড়া থানার এসআই মিহির জানান, সরেজমিনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here