যশোরে ৩৫ ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন

0
246

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : তুচ্ছ কিছু ঘটনা ছাড়া যশোরের ৩টি উপজেলার ৩৫টি ইউনিয়ন পরিষদে তৃতীয় ধাপের নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। রোববার জেলার শার্শা, বাঘারপাড়া এবং মণিরামপুর উপজেলার এসব ইউপিতে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। যা চলে বিকাল ৪টায় পর্যন্ত। সকালে ভোট গ্রহণের শুরুতে শার্শায় প্রতিপ মেম্বর প্রার্থীর হামলায় তিনজন গুরুতর জখম হয়েছে। উপজেলার ডিহি ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বর প্রার্থী তরিকুল ইসলাম তোতা (তালা) ও তার সমর্থকরা প্রতিপ শহিদুল ইসলামের (মোরগ মার্কা) তিন সমর্থককে কুপিয়ে জখম করেছে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শালকোনা প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন সকালে বর্তমান মেম্বর তরিকুল ইসলাম তোতাসহ তার সমর্থক আশানুর সরদারসহ কয়েকজন রামদা, চাইনিজ কুড়াল, শাবল নিয়ে মোরগ মার্কার লোকজনের উপর চড়াও হয়। তারা কুপিয়ে ও পিটিয়ে ফারুক, মিজান ও রাসেলকে গুরুতর জখম করে। তাদের বয়স ২০ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন মিথিসহ পুলিশ ও বিজিবি সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারীদের ধাওয়া দেয়। পরে পুলিশের সহযোগিতায় আহতদের শার্শার বুরুজবাগান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। একইসাথে হাঙ্গামার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে কটা খালেক নামে এক ব্যক্তিকে পুলিশ আটক করে। দুপুর ১ টার দিকে একই উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের গোড়পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে ভোটার স্লিপ বিতরণকালে পিতা-পুত্রকে ছুরিকাঘাত করেছে প্রতিপরা। আহতরা হলেন, বাবা আলিমুর রহমান (৫৫) ও তার ছেলে রাব্বী (৩০)। কেন্দ্রে দায়িত্বরত এসআই মেজবাহ বলেন, ‘তাদের মাথায় আঘাত লেগেছে। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্যে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রের বাইরে এ ঘটনা ঘটায় ভোটগ্রহণে কোনও সমস্যা হয়নি।’শার্শা উপজেলার ডিহি ইউনিয়নের কাশিপুর কেন্দ্রর দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাচনী কর্মকর্তা কলিম উল্লাহ জানান, সকাল থেকে কোন সহিংসতা ছাড়া ব্যপক ভোটার উপস্থিতির মধ্য দিয়ে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এ কেন্দ্রে পঞ্চান্ন শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে।একই ইউপি’র রঘুনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বাবলু বিশ্বাস জানান, তার কেন্দ্রে সকাল থেকে ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট প্রদান করেছেন। এই কেন্দ্রে সত্তর শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। জেলায় যে ৩৫টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে সেগুলো মধ্যে শার্শা উপজেলায় রয়েছে দশটি ইউনিয়ন। ইউনিয়ন গুলো হচ্ছে- ডিহি, লণপুর, নিজামপুর, পুটখালী, কায়বা, গোগা, বাগআঁচড়া, শার্শা সদর, নাভারণ এবং বাহাদুরপুর। মণিরামপুর উপজেলায় রয়েছে ১৬টি ইউনিয়ন। ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- শ্যামকুড়, কাশিমনগর, রোহিতা, খেদাপাড়া, ঝাঁপা, চালুয়াহাটি, ভোজগাতি, ঢাকুরিয়া, হরিদাসকাটি, মণিরামপুর সদর, মশ্বিমনগ, খানপুর, নেহালপুর, দুর্বাডাঙ্গা, কুলটিয়া ও মনোহরপুর। অন্যদিকে, বাঘারপাড়ার ইউনিয়নগুলো হলো জহুরপুর, বন্দবিলা, রায়পুর, বাসুয়াড়ি, জামদিয়া, দোহাকোলা, নারিকেলবাড়ীয়া, ধলগ্রাম ও দরাজহাট। এর মধ্যে উপজেলার রায়পুরে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here