বাবার পর মা এরপর মেয়ে লাঙ্গল প্রতিকের চেয়ারম্যান হয়ে বাজিমাত করলেন কালিগঞ্জের কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের সাফিয়া পারভীন

0
229

সাতীরা প্রতিনিধি ঃ সাতীরার কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাবার পরে মা এরপর মেয়ে সাফিয়া পারভীন জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে বাজিমাত করেছেন। রোববার (২৮ নভেম্বর) তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩৬৩ ভোট বেশী পেয়ে তিনি জয়লাভ করেন। এই ইউনিয়নে টানা তিন বার জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে প্রথমে জিতেন বাবা মোশারফ হোসেন, এরপর মা আকলিমা খাতুন (মোশারফের স্ত্রী) ও তৃতীয় বার জিতলেন মেয়ে সাফিয়া পারভীন। ইউনিয়নটিতে বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঘোড়া প্রতিক নিয়ে রবিউল্লাহ্ বাহার ও নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়েন শ্যামলী রানী অধিকারী। কালিগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিা কর্মকর্তা ও কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, ইউনিয়নটিতে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী পেয়েছেন ৩৮৫ ভোট, লাঙল প্রতিকের প্রার্থী ৭২৩৮ ভোট ও ঘোড়া প্রতিক পেয়েছেন ৬৮৭৫ ভোট। বেসরকারিভাবে লাঙল প্রতিকের প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়েছে। নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীর থেকে ৩৬৩ ভোট বেশী পেয়ে জয়লাভ করেছেন জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতিকের এই প্রার্থী। কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন সাফিয়া পারভীনের বাবা জাতীয় পার্টির নেতা মোশাররফ হোসেন। ২০১৮ সালে ৮ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ কার্যালয়ের সামনে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এরপর ১৫ সেপ্টেম্বর হত্যাকারী যুবলীগ নেতা আব্দুল জলিল গাইনকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসী। এরপর ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ইউনিয়নটির উপ-নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতিকে জয়লাভ করেন নিহত মোশাররফ হোসেনের স্ত্রী আকলিমা খাতুন লাকী। সর্বশেষ ২০২১ সালের ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে দাঁড়িয়ে জয়ী হলেন মোশাররফ হোসেনের মেয়ে সাফিয়া পারভীন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here