আধুনিক বেনাপোল গড়তে চাই সতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সজন

0
125
রবিউল ইসলাম (শার্শা সীমান্ত) প্রতিনিধি: দেশের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক অঞ্চল বেনাপোল স্থল বন্দরকে ঘিরে গড়ে উঠেছে বেনাপোল পৌরসভা। আসন্ন দ্বিতীয় ধাপে পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে বেনাপোল পৌর এলাকায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া। আর এই নির্বাচনকে ঘীরে বেনাপোল পৌর মেয়র পদপ্রার্থী হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেছেন বেনাপোল গড়ার স্বপ্নদ্রষ্টা মফিজুর রহমান সজন। দীর্ঘ বছর ধরে বেনাপোল স্থল বন্দরের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী সংগঠন বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের নেতৃত্বদানকারী ন্যায় নিষ্টা ও সততার সহিত বেনাপোলের বিভিন্ন উন্নায়নের কাজ করেছেন। আজকের এই বেনাপোল নিয়ে তার ভাবনায় লালন করেছিলেন সমৃদ্ধশালী বেনাপোল। ১৯৮২ সালে গড়ে তুলে ছিলেন “বেনাপোল উন্নয়ন পরিষদ” আর এই উন্নায়ন পরিষদের সভাপতি থেকে ৫ দফা দাবি পূরন নিয়ে ৪২ বছর ধরে কাজ করে চলেছেন। বেনাপোল উন্নয়ন পরিষদের ৫দফা দাবি ছিলঃ-
1 বেনাপোল পৌরসভা গঠন
2 বেনাপোল পূর্নাঙ্গ স্থল বন্দর গঠন
3 বেনাপোল কাস্টম হাউস গঠন সহ ভিত্তি স্থাপন
4 বেনাপোল রেল লাইন চালু করন, আই সিডি টার্মিনাল চালু করা
5 এশিয়ান হাইওয়ে ৬ লেন করন।
এই ৫টি দাবির মধ্যে বর্তমান ৪টি দৃশ্যমান রয়েছে বাকি একটি এশিয়ান হাইওয়ে লেন কাজও চলামান। উলেখ্য ১৯৮৫ সালে রাষ্ট্রপতি এরশাদ বেনাপোল পরিদর্শনে আসলে বেনাপোল উন্নায়ন পরিষদের সভাপতি হিসাবে কাস্টমস,বন্দর পরিদর্শন করান এসময় বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ড থেকে বলফিল্ড পর্যন্ত ৪ লেন প্রতিশ্রæতি দিলে তা বাস্তবায়ন করান। এছাড়া ১/১১ এর সময় বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।
বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের ৮বছর সফল সভাপতির দায়িত্ব পালনকালে করোনাকালীন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট ভিডিও কনফারেন্সে বেনাপোল স্থল বন্দরের বিভিন্ন দাবি দাবা পেশ করেন। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নিকট থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা এই বেনাপোলের উন্নায়নের জন্য পাশ করিয়েছেন যার উন্নায়ন কর্মকান্ড বর্তমান চালু রয়েছে। বন্দরে ১০০ একর জমি অধিগ্রহন করে আন্তর্জাতিক আধুনিক মানের স্থল বন্দরে রুপদান করা। বাইপাস সড়কের দক্ষিন পাশে ৫২৫ বিঘা জমির উপরে এডিবি ব্যাংকের আওতায় ৩২০০ হাজার কোটি টাকার বেনাপোল স্থল বন্দরের ইউনিট-২ সহ রেল আইসিডি টার্মিনাল নির্মানাধীন প্রকল্প চলমান রয়েছে। বেনাপোল রেল আই সিডি চালু করা, চেকপোষ্ট গেট,প্যাসেঞ্জার টার্মিনাল সহ অসংখ উন্নায়ন মূলক কাজে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন।
বেনাপোল পৌরসভার মেয়র পদপ্রার্থী হিসাবে আত্মপ্রকাশ করায় তিনি জানান, যুবক বয়স থেকেই বেনাপোলে বিভিন্ন উন্নায়নমূলক কাজের সারথী হিসাবে কাজ করেছি। এখন অসমাপ্ত বেনাপোল পৌরসভার উন্নায়নে জন্য পৌরবাসির দোয়া ও সমার্থন নিয়ে একটি আধুনিক মানের মডেল পৌরসভা উপহার দিতে চাই। বেনাপোল বাসির দীর্ঘ দিনের চাওয়া পাওয়া অসামাপ্ত কাজ করতে চাই। আগামীর বেনাপোল যেন সমৃদ্ধ মডেল পৌরসভা হিসাবে বাংলাদেশের বুকে স্বগর্বে দড়িয়ে থাকে। মফিজুর রহমান সজন আরও জানান, পৌর সভার মেয়র হলে আমার ১ম কাজ হবে বেনাপোল বাসির দীর্ঘদিনের দাবি একটি হাসপাতাল সেটি প্রতিষ্টা করা।
বেনাপোল একাধিক পৌর নাগরিক জানিয়েছেন, মফিজুর রহমান সজন এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন ও সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডে ও সাধারন জনগনের পাশে থেকে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। একজন সৎ, যোগ্য ও ভালো মানুষ হিসেবে তার একটা ব্যক্তি ইমেজ রয়েছে সর্ব মহলে। ফলে বেনাপোল পৌর এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে তার একটা গ্রহন যোগ্যতা রয়েছে। আগামী পৌর নির্বাচনে তার বিজয়ের উজ্জল সম্ভবনা রয়েছে বলে সাধারণ জনগন মতামত প্রকাশ করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here