নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী গিলবার্ট নির্মল বিশ্বাসের বিভিন্ন স্থানে সপ্তাহ ব্যাপী গণসংযোগ

0
42

স্টাফ রিপোর্টার : আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরা তাদের রাজনৈতিক কার্যক্রমে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন। এমনই সময় ‘নৌকা যার আমরা তার’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় গণসংযোগ ও বিভিন্নমূখি উন্নয়ন কার্যক্রম এবং সাহায্য সহযোগিতার কারণে এলাকার ভোটারদের মধ্যে একটা অবস্থান সৃষ্টি করেছেন আওয়ামীলীগের নৌক মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী গিলবার্ট নির্মল বিশ্বাস। তিনি ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামের এক অত্যন্ত সাধারণ কৃষক পরিবার থেকে নিজের যোগ্যতায় উঠে এসেছেন। পরবর্তীতে নিজের যোগ্যতাবলে ঢাকার নটরডেম কলেজ এবং দক্ষিণ কোরিয়ার ক্যাথলিক ইউনিভার্সিটি অব দেগু থেকে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেছেন। পড়াশুনা শেষে দক্ষিণ কোরিয়া ও আমেরিকায় চাকুরি ও স্থায়ী হওয়ার প্রস্তাব পেলেও তিনি দেশের টানে দেশে ফিরে এসেছেন। বর্তমানে একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরির পাশাপাশি গঙ্গানন্দপুর ডিগ্রি কলেজের গভর্নিংবডির সভাপতি ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের ঝিকরগাছা উপজেলা শাখার আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি প্রধানমন্ত্রীর জামাই হিসেবে খ্যাত হলেও তার বিরুদ্ধে প্রভাব বিস্তার করে কোনো অন্যায় সুবিধা বা আর্থিক সুবিধা নেওয়ার কোনো প্রকার অভিযোগ এলাকায় পাওয়া যায় না। এরই মধ্যে সে যশোর-২ আসনের বিভিন্ন স্থানে সভা, সমাবেশ, উঠোন বৈঠক, ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করে যাচ্ছেন এবং তাদের সমস্যার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনছেন। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের হ্যান্ডবিল ভোটারদের হাতে তুলে দিচ্ছেন ও ভোটারদের বিভিন্ন আশ্বাস প্রদান করছেন। প্রার্থীরা বিভিন্ন ইউনিয়নসহ হাটবাজার, চায়ের দোকানে গিয়ে ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করছেন এবং বিভিন্ন গাছ বা সুবিধাজনক স্থানে বিলবোর্ড, ব্যানার টাঙিয়ে ভোটারদের মনোযোগ আকর্ষণ করছেন। অসুস্থ নেতাকর্মীদের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছেন, কর্মী সমর্থকদের নিয়ে শোডাউন করছেন।
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সম্পর্কে তিনি বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। আমি যে অবস্থানেই থাকি না কেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে কাজ করে যাব। আমি দীর্ঘদিন থেকে প্রধানমন্ত্রীর সাহচর্যে এসেছি। তাঁর সততা ও দেশের প্রতি ভালোবাসার প্রেরণায় আমিও অনুপ্রাণিত। সে যায়গা থেকেই আমিও দেশের জন্য কিছু করতে চাই। জনগণ দেখেছে যে গত কয়েক বছরে আমি এই এলাকার জন্য কি করেছি। আমি মনে করি আমার এ সব কার্যক্রমের ফলে এলাকার জনগন আমাকে ভালবাসে। যদি প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দেন, তাহলে আমি চৌগাছা-ঝিকরগাছাবাসীকে সারা দেশের মধ্যে মডেল এলাকা হিসেবে গড়ে তুলবো। তিনি আরো বলেন, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত স্নেহভাজন ও আস্থাভাজন হয়েও অতি সাধারণ বেশভূষা ও চলাফেরার কারণে এলাকার আপামর মানুষের কাছে, বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের কাছে আমি গিলবার্ট দাদা নামে এলাকায় অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে আছি।
তিনি বিগত সপ্তাহ জুড়ে নৌকা যার আমরা তার’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গণসংযোগে ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারন ইউনিয়নের রঘুনাথপুর বাগ, গদখালী ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের কার্যালয়, বাময়ালী চাঁপাতলা গ্রাম, শিমুলিয়া ইউনিয়নের রাধানগর বাজার, গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের কাগমারী গ্রাম, সদর ইউনিয়নের সাগরপুর গ্রাম, শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদ, কুলবাড়িয়া গ্রামে, ফেরিঘাট বাজার, হাজিরবাগ ইউনিয়নে দেউলী বটতলা বাজার, মাটিকুমরা বাজার ও চৌগাছা উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের জগদীশপুর গ্রাম, স্বর্পরাজপুর, মাড়ুয়া বাজার, পাতিবিলা ইউনিয়নের রোস্তমপুর বাজার, হাকিমপুর ইউনিয়নের হাকিমপুর বাজার, শিশুতলা বাজার, নিমতলা বাজার, দেবীপুর আওয়ামীলীগের কার্যালয় সহ বিভিন্ন স্থানে সভা ও সমাবেশ করেছেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা হিন্দু-বৌদ্ধ- খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মৃনাল দত্ত,ঝিকরগাছা উপজেলা শ্রমীকলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক আলাল, ঝিকরগাছা পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলিমুল মৃধা, ঝিকরগাছা সদর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক শাহীন কবির, গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা ও প্যানেল চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, ইউপি সদস্য আশরাফুল আলম, ঝিকরগাছা উপজেলা তাতীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মন্টু হোসেন, যুবলীগ নেতা ইয়াসিন, শংকরপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা মামুন হোসেন, যুবলীগ নেতা সোহাগ হোসেন, চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য হাসিবুল হাসান শান্ত, ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা পিয়াস, ছাত্রলীগ নেতা শাহীন, আবু সাঈদ, আসিফ, বাবুল সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here