শার্শায় পড়া না পারায় ছাত্রকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন প্রধান শিক্ষক 

0
45
শহিদুল ইসলাম : যশোরের শার্শায় ক্লাসে পড়া না পারায় হাবিবুর রহমান শেখ নামে ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন প্রধান শিক্ষক।  বৃহস্পতি বার শার্শা উপজেলার সেতাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষকের পিটুনিতে অসুস্থ হয়ে পড়ায় ছাত্র হাবিবুর রহমান শেখকে ঐদিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহি অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ছাত্রের দাদা আলী আহম্মাদ জানান, গতকাল সকালে বিদ্যালয়ের গণিত শিক্ষক সেলিম বিশ্বাস ক্লাস নিচ্ছিলেন। এ সময় পড়া না পারায় হাবিবুর রহমান শেখকে দুই হাতে বেত দিয়ে উপুর্যুপরি আঘাত করেন প্রধান শিক্ষক সেলিম বিশ্বাস। তার এমন পিটুনিতে হাবিবুর অসুস্থ হয়ে পড়ে।খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে শার্শা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার পর বাড়ি নিয়ে যান অভিভাবকেরা।
এ বিষয়ে স্কুলের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির জানান, বিষয়টা আমি শুনেছি। তবে আপনি যে ভাবে বলছেন এতো মারধর করিনি। আপনারা যা পারেন তাই করেন বলে সাফ জানান।
এ বিষয়ে গণিত শিক্ষক সেলিম বিশ্বাসের ০১৯১৪৮২৮৭৭১‪ নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন অভিভাবক জানান,সেতাই হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর এই স্কুলের সভাপতি হওয়ার পর থেকে শিক্ষকরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে এবং স্কুলের শিক্ষা কার্যক্রম নুয়ে পড়েছে। কারণ শিক্ষকদের তিনি মদদদেন। জাহাঙ্গীর এলাকায় রাজনৈতিক ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় অভিভাবকরা ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে পারেনা না বলে তারা জানান। শার্শা উপজেলা নির্বাহি অফিসার নারায়ন চন্দ্র পাল জানান,এবিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি।পরে প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার উপর তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here