অবৈধ সম্ভাব্য সন্তানের পিতৃত্বের দাবিতে এক মেয়ের অবস্থান ধর্মঘট।   

0
43

মনিরামপুর পৌর প্রতিনিধি(জাহিদ): যশোর মনিরামপুর উপজেলায় উত্তর ভরতপুর গ্রামের আরাফাত সরদারের প্রেমের ফাদে পড়ে গর্ভবতী হয়ে পড়ে ডলি খাতুন নামে এক অবিবাহিত নারী।                           আজ ২০মে শনিবার আনুমানিক ৪ টার দিকে নবাগত সন্তানের পিতৃত্বের দাবীতে ছেলের বাড়িতে অনশন করে ডলি খাতুন।স্হানীয় সুত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন যাবত এই নারী আরাফাতের বাড়িতে এসে তার গর্ভে থাকা সন্তানের কথা বলেন।আরাফাতের বাড়িতে গতকাল১৯শে মে এলাকায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ স্হানীয় জনপ্রতিনিধি একটি বৈঠক করেন সেখানে কোনো সমাধান করতে পারেননি জনপ্রতিনিধিরা।অবশেষে মণিরামপুর একটি প্যাথলজী থেকে আল্টাসনা রিপোর্ট করায় ঐ নারী ও আরাফাত রহমান উপস্থিত হয়ে।ঐ নারী অভিযোগ তোলেন আল্ট্রাসোনা রিপোর্ট নিয়ে, মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে ভুল রিপোর্ট দিয়েছে প্যাথলজি থেকে। আমি একই দিনে ১৯শে মে নওয়াপাড়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আল্টাসনা রিপোর্ট করিয়ে জানতে পারি আমি ৩৯ দিনের অন্তঃসত্ত্বা। আরাফাত আমি রাজারহাট নামক স্থানে একই বিস্কুট ফ্যাক্টারিতে কর্মরত ছিলাম, সেই থেকে আমাকে আরাফাত প্রেমের প্রস্তাব দেয়। আমি তাকে বিশ্বাস করে ভালবেসে ফেলি।আরাফাত আমাকে বিবাহ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে একাধিক রাত্রি যাপন করে।তারই পেক্ষাপটে আমি অন্তঃসত্ত্বা। আমি আরাফাতের নবাগত সন্তানের পিতৃত্বের স্বীকৃতি চাই।এ বিষয়ে আরাফাত রহমান এর চাচা বলেন স্হানীয় জনপ্রতিনিধি গন শালিস করছে তারা যে সিন্ধান্ত দিবে আমার পরিবার সেটাই মেনে নিবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here