যশোরে সফল নারী উদ্যোক্তার নাম ফারজানা ইয়াসমিন

0
55

শহিদ জয়,যশোর, ফারজানা ইয়াসমিন। যশোরে একজন সফল নারী উদ্যোক্ত। ২০১৬ তিনি শখের বশে যশোরে মাশরুম চাষ শুরু করেন এবং ২০১৯ সাল থেকে বাণিজ্যিক ভাবে মাশরুম চাষ শুরু করেন। তিনি স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়ে জেলা ও বিভাগীয় শহরে মাশরুম বিক্রি করা শুরু করেন। নিজে সাবলম্বী হওয়ার পাশাপারি মাশরুম সেন্টারে প্রথমে ১৫ জনকে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেন। বর্তমানে ৬০ জন আমার মাশরুম সেন্টারে কাজ করে। আমার মাশরুম প্রজেক্টর ‘বৃষ্টি মাশরুম সেন্টার’ ২০১৯ সালের শেষের দিকে থেকে মাশরুমের উপর ফ্রি প্রশিক্ষষ দিতে শুরু করি। ৭ দিন ব্যাপি ৩০ জন করে ব্যাচ করানো হয়।
এরপর ২০২০ সাল থেকে দেশীয় খাবার হোম মেইড আচার, ঘি, মধুময় বাদাম, পাটালি/গুড় এগুলো নিয়ে কাজ করা শুরু করেন। আর এ গুলো অনলাইন ও অফলাইনে সেল করতে থাকেন। এছাড়া যশোরের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও কর্মশালায় বৃদ্ধি ফুড বাজার নামে এক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাসার তৈরি রান্না খাবার সরবরাহ করা শুরু করেন। আমার এখানে ৪০ জন মহিলা কর্মী কাজ করে।
২০২১ সালে জাগ্রত যশোর যুব মহিলা ও শিশু উন্নয়ন সংস্থা প্রতিষ্ঠা করে যুব ও মহিলাদের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছি। এসব প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ৬০০-৭০০ জন যুব ও মহিলাদের সাবলম্বী হতে সহযোগিতা করেছি। বিভিন্ন উঠান বৈঠকের মাধ্যমে বাল্য বিবাহরোধ, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, ইভটিজিং প্রতিরোধ, মাদকদ্রব্য প্রতিরোধ শীর্ষক আলোচনা করে সচেতন করে তুলি। এছাড়া কৃষি কাজে উদ্ভুদ্ধ করণের জন্য বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ, বীজ ও জৈব সার বিতরণ করা হয়। যুব সমাজ অহেতু চাকরির পেছনে না ছুটে তাদের মেধা খাটিয়ে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করুক। নিজে কাজ করবে আরো ১০ জনকে কাজের সুযোগ করে দিবে। তারুণ্যের শক্তি কাজে লাগাতে তিনি সরকারের নিকট সহযোগিতা কামনা করেন।
এছাড়া ২০২০ সালে যশোর থেকে জয়িতা পুরষ্কার পেয়েছেন ফারজানা ইয়াসমিন। তিনি যশোরবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here