২৪ ঘণ্টা পার উদ্ধার হয়নি নিখোঁজ ঢাবি ছাত্র

0
39
নিজস্ব প্রতিবেদক কুষ্টিয়াঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় গড়াই নদিতে বন্ধুদের সঙ্গে গোসলে নেমে তানভীর আহমেদ (২৩) নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র নিখোঁজ হয়েছেন। সোমবার (১২ জুন) বিকেল  ৪ টার দিকে কুমারখালী উপজেলার লাহিনীপাড়ার গড়াই রেলসেতু এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও তাকে উদ্ধার করতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরিদল। নিখোঁজ তানভীর বরগুনা সদর উপজেলার চরকগাছিয়া গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। তারা বাবা প্রফেসর আব্দুল মালেক বরগুনা সরকারি কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফার্মেসি বিভাগের ১৩ জন ছাত্র একটি মাইক্রোবাসে করে মেহেরপুর ও কুষ্টিয়ার বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় ঘুরতে আসেন। তারা প্রথমে মেহেরপুরের মুজিবনগরে যান। সেখান থেকে যান কুষ্টিয়ায় বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের আখড়াবাড়িতে। এরপর বিকেলে কুমারখালী লাহিনীপাড়া এলাকায় গড়াই নদে রেলসেতুর নিচে নামেন ওই তিন বন্ধু। তারা সাঁতরে গড়াই নদ পার হওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় দুই বন্ধু তীরে উঠতে পারলেও তানভীর পানির স্রোতে তলিয়ে যান। খবর পেয়ে কুমারখালী ও কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। পরে খুলনা ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়। তাদের উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে। নিখোঁজের ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত তানভীরকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।
এ ঘটনায় কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. খাইরুল আলম, কুমারখালীর ইউএনও বিতান কুমার মন্ডলসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। কুমারখালী উপজেলার ইউএনও বিতান কুমার সময়ের আলোকে বলে আমরা গতকাল দুর্ঘটনার পর থেকে উদ্ধার কাজ অব্যাহত রেখেছি ঢাবি ছাত্র উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাবো। এবিষয়ে পুত্র হারানো বাবা প্রফেসর আব্দুল মালেক সময়ের আলোকে বলেন আমরা আজ সকালে ভোরে কুষ্টিয়ায় এসেছি আমরা আসার পরথেকে দেখেছি এখান প্রশাসন সহ সাধারন মানুষ পর্যন্ত আমাদের কে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। এবিষয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম রিয়ন বলেন। ঢাবি ছাত্র তানভীর আহাম্মেদ আমার বাল্য বন্ধু এখানে যে ভাবে উদ্ধার কাজ চলছে এই উদ্ধার কাজ আরো আপডেট হওয়ার দরকার আরো ভালো প্রযুক্তি দিয়ে  উদ্ধার কাজ করুক। দুপুর ১টার দিকে কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিস সহকারী পরিচলক মো. জানে আলম বলেন, কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিস, কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস ও খুলনার ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। এখনো নদীতে ডুবে যাওয়া ছাত্রকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তাকে খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here